১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,সকাল ১০:৪৫

শিরোনাম
গুম-খুনের রাজনীতির শুরু জিয়ার হাতেই -তথ্যমন্ত্রী দেশবিরোধী অপশক্তির ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে -শ ম রেজাউল করিম অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের গৌরব সমুন্নত রাখতে সাংস্কৃতিক আন্দোলন জোরদার করতে হবে :টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী রাজনৈতিক সরকারের সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নে সমন্বয়ের দায়িত্বে সচিববৃন্দ -তথ্যমন্ত্রী ক্ষমতায় থাকলে দলকে বেশি দায়িত্ববান হতে হয় -ড. হাছান মাহমুদ ক্ষমতা নিষ্কন্টক করতে জিয়াউর রহমান হাজার হাজার বৃক্ষও ধ্বংস করেছেন -তথ্যমন্ত্রী দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র-তৎপরতা বাড়াতেই খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে চেয়েছিল বিএনপি -তথ্যমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ‘মাইনাস’ করার জন্যই কি বিদেশে নেয়ার আবেদন! তথ্যমন্ত্রী যা বললেন বিষোদগার নয়, একসাথে মানুষের পাশে -তথ্যমন্ত্রী

৭ মাস আগে মারা যাওয়া চিকিৎসককে বদলি

প্রকাশিত: জুলাই ৬, ২০২১

  • শেয়ার করুন

বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে কর্মরত অবস্থায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার সাত মাস পর চিকিৎসক জীবেশ কুমার প্রামাণিক স্বপনকে বদলি করা হয়েছে। রবিবার (৫ জুলাই) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে এক প্রজ্ঞাপনে তাকে করোনা বিশেষায়িত বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে সংযুক্তিতে পদায়ন করা হয়। এদিকে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মৃত চিকিৎসককে পদায়ন করে তামাশার সৃষ্টি করেছে বলে এ নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এটিএম নুরুজ্জামান সঞ্চয় জানান, এখানে করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ৪৩ জনকে সংযুক্ত করা হয়েছে। এ তালিকায় ভুলবশত ডা. জীবেশের নাম এসেছে।

বগুড়া স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিক স্বপন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের ৩১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। তিনি ২২তম বিসিএস ক্যাডারের (স্বাস্থ্য) কর্মকর্তা। ডা. স্বপন বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে রেসপিরেটরি মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এখানে কারোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। গত ৬ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তালিকায় মৃত চিকিৎসক জীবেশ কুমার প্রামাণিক স্বপনের নাম
এদিকে, বগুড়ার করোনা বিশেষায়িত মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে রোগীদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডার কর্মকর্তাদের মধ্যে ৪৩ জনকে এখানে সংযুক্তিতে পদায়ন করা হয়। গত ৫ জুলাই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব জাকিয়া পারভিন স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। এ তালিকায় মৃত চিকিৎসক জীবেশ কুমার প্রামাণিক স্বপন ১৫ নম্বরে আছেন। প্রজ্ঞাপনটি চিকিৎসকদের নজরে এলে নানা আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসা কর্মকর্তা মন্তব্য করেন, এটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তামাশা। সাত মাস আগে মৃত চিকিৎসকের নাম সংযুক্ত করাই প্রমাণ করে তারা কতটা ‘ব্যাকডেটেট’।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এটিএম নুরুজ্জামান সঞ্চয় জানান, সংযুক্তিতে পদায়ন করা চিকিৎসকরা নিজ নিজ কর্মস্থলে থেকেই এখানে করোনা রোগীদের সেবা দেবেন। সম্ভবত ভুলবশত ডা. স্বপনের নামে এ তালিকায় রয়েছে। তিনি বিষয়টি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অবহিত করবেন বলে জানিয়েছেন।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আবদুল ওয়াদুদ ফোন না ধরায় এ বিষয়ে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. রেজাউল আলম জুয়েল জানান, করোনাযুদ্ধে জীবন বিসর্জনকারী চিকিৎসককে নতুন করে আরেকটি হাসপাতালে পদায়ন (সংযুক্ত) করা বিস্ময়কর ব্যাপার। মৃত করোনা যোদ্ধা ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিক স্বপনের পদায়ন ভুলবশত হয়েছে। মঙ্গলবার বিষয়টি লিখিতভাবে মন্ত্রণালয়ে অবহিত করা হয়েছে।

  • শেয়ার করুন