itpolly
২০ মার্চ ২০২৪, ৭:১৬ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরে গেজিং আলমের ভয়ংকর জালিয়াতি ও প্রতারণা বাণিজ্য!

অভ্যন্তরীণ নৌপথে চলাচলকারী মালবাহী নৌযানে একাধিক রেজিষ্ট্রেশন সনদ পাওয়া যাওয়ায় এমভি সাফিনা ই বাহার -১ ( ২৬৩৪৩) নামের নৌযানের রেজিস্ট্রেশন সনদ বাতিল করা হয়েছে। নৌযানটির রেজিষ্ট্রেশন করা হয়েছিলো চট্টগ্রাম নৌ বন্দরে। এ ব্যাপারে নৌ পরিবহন অধিদপ্তর এর মহাপরিচালক কর্তৃক গত ০২ জানুয়ারী রেজিষ্ট্রেশন ও সার্ভে কার্যক্রম বাতিল করে চিঠি জারি করা হয়।
চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, এমভি সফিনা-ই বাহার-১ নামের নৌযানটি চট্টগ্রামের সী বিচ এলাকায় পরিদর্শন কালে সংশ্লিষ্ট সার্ভেয়ারের সন্দেহ হলে নৌযানটির সার্ভে, রেজিষ্ট্রেশন পরীক্ষা করে দেখা যায় উক্ত নৌযানটির আরেকটি নারায়নগঞ্জ নৌ বন্দরের রেজিষ্ট্রেশন সনদ রয়েছে। নারায়নগঞ্জ নৌ বন্দরের রেজিষ্ট্রেশন সনদের মেয়াদ ৪০ বছর পূর্ণ হয়েছে। নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের নিয়মানুযায়ী নৌযানের বয়স ৪০ বছর পূর্ন হলে নৌযানটিকে স্ক্র্যাপ করে বাতিল ঘোষনা করতে হয়। কিন্তু নৌযান মালিক নৌযানটিকে স্ক্র্যাপ না করে চাতুরাতার মাধ্যমে নৌযানটির নতুন নকশা অনুমোদন করিয়ে আবার রেজিষ্ট্রেশন করে নেন।
এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সার্ভেয়ারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নৌযানটির মালিক মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে, তথ্য গোপন করে নতুন রেজিষ্ট্রেশন করেছেন । এ নৌযানটি পরিদর্শন কালে সন্দেহ হলে আমি অনুসন্ধান করি এবং তদন্ত করে জানতে পারি নৌযানটি পুরনো। তৎক্ষনাৎ আমি ডিজি মহোদয়কে অবগত করি এবং উনার নির্দেশে রেজিষ্ট্রেশন বাতিলের সুপারিশ পত্র প্রেরণ করি।
মালিকের এমন প্রতারনার বিষয়ে জানতে চাইলে, মালিক জানান আমি অল্প শিক্ষিত মানুষ। জাহাজের যে কোন কাজের ব্যাপারে মতিঝিলের আলম নামের এক ব্যক্তির সাথে পরামর্শ করি। আলম আমাকে বুদ্ধি দেয়, আমি যেনো জাহাজ না কেটে নতুন রেজিষ্ট্রেশন করি। এ ব্যাপারে সে আমাকে সহায়তা করবে। সে আমাকে জানায় তার ব্যক্তিগত ডিজাইন ফার্ম আছে, সেখান থেকে সে আমাকে কাজ করে দেবে। আমি সবকিছু শুনে জাহাজের কগজ করার জন্য তাকে দায়িত্ব দেই। আলম আমাকে সবকিছু করে দিছে। কিভাবে কি করেছে এর বেশি আমি জানি না। এ কাজ করার জন্য আলম আমার কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়েছে।
এ প্রতারণার ব্যাপারে সরেজমিনে অনুসন্ধান করে জানা যায়, অভিযুক্ত আলম মতিঝিল পাড়ায় গেজিং আলম নামে পরিচিত। সে দীর্ঘদিন ধরেই প্রতারনার মাধ্যমে জাহাজের বিভিন্ন কাজ করে আসছে। মতিঝিলের একটি অফিসে গেজিং অপারেটর হিসেবে কাজ করার সুবাধে সে নৌযান মালিকদের সাথে পরিচিত হয় এবং নৌযানের গেজিং রিপোর্ট ও বুকলেট জালিয়াতি করে সে মালিকদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়।
নৌযানের থিকনেস ভালো না হলেও মালিকদের ভয় ভীতি দেখিয়ে টাকার বিনিময়ে সংশ্লিষ্ট ইঞ্জিনিয়ারের স্বাক্ষর জাল করে গেজিং রিপোর্ট প্রদান করতেন। একাধিক প্যানেল সুপারভাইজর এর অজান্তে তাদের স্বাক্ষর জাল করে স্ট্যাবিলিটি বুকলেট তৈরী করে মালিকদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা আদায় করেন। একাধিক প্যানেল সুপারভাইজর আলমের এই সব প্রতারনার কথা স্বীকার করেন। সই জাল করে নকশা বিক্রি করে দেয়া, বেনামে বুকলেট প্রদান ও গেজিং রিপোর্ট জালিয়াতি সর্বত্রই আলমের নাম শুনা যায়।
দ্রত নকশা পাশ করিয়ে দেয়ার নাম করে মালিকদের কাছ থেকে বিপুল অংকের টাকা নেয় সে। নকশা কমিটির মেম্বারদের টাকা দিতে হয় এই ভয় দেখিয়ে সে মালিকদের কাছে টাকা দাবি করে। নৌযান সার্ভে ও রেজিষ্ট্রেশন করার সময় সার্ভেয়ারদের নাম করেও সে টাকা আাদায় করে।
নৌযানের গেজিং, বুকলেট, নকশা, সার্ভে, রেজিষ্ট্রেশন জালিয়াতি করে আলম আজ প্রচুর বিত্ত বৈভবের মালিক বনে গেছেন। ঢাকায় একাধিক ফ্ল্যাট, গ্রামের বাড়ীতে ডুপ্লেক্স বাড়ী ও একাধিক নৌযানের মালিকানা রয়েছে গেজিং আলম নামে পরিচিত এই প্রতারকের। এছাড়াও মতিঝিলে তার মালিকানায় একটি ডিজাইন ফার্ম রয়েছে।
অনুসন্ধানকালে একাধিক নৌযান মালিক, ম্যানেজারদের সাথে কথা বললে তারা জানান, আলম সকল প্রকার জালিয়াতি করতে পটু। সে কখনো নিজে স্বশরীরে কোন সার্ভে অফিসে যায় না, লোক মারফত তার দুই নম্বরী কাজ করিয়ে থাকে।
এ ব্যাপারে গেজিং আলমের ব্যক্তিগত ফোনে যোগাযোগ করা হলে, তিনি কথা বলতে রাজি হননি।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নড়িয়া প্রানী সম্পদ দপ্তরে ভেটারিনারি সার্জন নেই তবুও যথাযথ সেবা পাচ্ছে খামারীরা

এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

বগুড়ার শেরপুরে পরিবেশ প্রতিরক্ষা সংস্থার উদ্যোগে স্মার্ট স্কুল প্লান্টেশন শুরু করা হয়েছে

উল্লাপাড়ায় নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগরেরা

৭ নং অনুচ্ছেদে সংশোধনসহ কোটার বিষয়ে আদালতকে পাশ কাটিয়ে কিছুই করবে না সরকার: আইনমন্ত্রী

শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বিশেষ রেয়াতের সুবিধা বিবেচনা করা হচ্ছে

২০১৮ কোটা আন্দোলনের মেধাবী নেতারাই যখন বিসিএস পরীক্ষায় ফেল

ক-তফসিলভুক্ত অর্পিত সম্পত্তি অভিন্ন খতিয়ানের আওতায় আসছে

ডিমলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

নজরুলের বিদ্রোহী চেতনা ধারণ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেনঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

১০

যে পরিকল্পনায় অগ্রগতি নেই সে পরিকল্পনা মূল্যহীন: গণপূর্তমন্ত্রী

১১

শাহজাদপুরের চিথুলিয়া বন্যায় ভেঙে যাওয়া পাকা সড়ক মেরামতে ধীরগতি, ৯ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতে দূর্ভোগ

১২

প্রাইম ব্যাংক পিএলসিথর সাথে পেরোল ব্যাংকিং চুক্তি করেছে রিভ গ্রুপ

১৩

চা নিয়ে অবৈধ ব্যবসা করলে শুধু লাইসেন্স বাতিল নয়- কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

১৪

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি

১৫

উল্লাপাড়ায় ৭৫ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১০ কমিউনিটি ক্লিনিক পানিবন্দি

১৬

কেইনের অর্জন, ফন ডাইকের যন্ত্রণা

১৭

শাহজাদপুরে দেশীয় শুটার গান সহ ডাকাত দলের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে শাহজাদপুর থানা পুলিশ

১৮

ইডিএলএমএস প্রকল্পে ৩৭% অগ্রগতি

১৯

মাদক সরবরাহ উৎসের মূলোৎপাটন করে মাদককে স্থায়ীভাবে নির্মূল করতে হবে”- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

২০