itpolly
২০ মার্চ ২০২৪, ৭:১৫ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

রাজউকের পূর্বাচলে নায়েব আলী শরীফের দুর্নীতির রাজত্ব!

দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সরকারি আবাসন প্রকল্প পূর্বাচল নতুন শহর আবাসিক প্রকল্পের কাজ শুরু হয় ১৯৯৫ সালে। কাজ শুরুর পর প্রকল্পের মেয়াদ এখন পর্যন্ত সাতবার বাড়ানো হয়েছে। ঢাকা শহরের পাশে গড়ে তোলা নতুন এ শহরে সব ধরনের আধুনিক নাগরিক সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি ছিল রাজউকের। কিন্তু সে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এপর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়নি। নাগরিক পরিষেবা না থাকায় প্রকল্প এলাকা এখনও বাসযোগ্য হয়নি।

গত ২৮ বছরেও নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে না পারায় পূর্বাচলে বাড়ি নির্মাণ করছেন না প্লট মালিকরা। সবশেষ প্রকল্পের মেয়াদ দেড় বছর বাড়িয়ে ২০২২ সালের জুন থেকে ২০২৪ সালের ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু এই সময়সীমার মধ্যেও প্রকল্পের কাজ শেষ হবে কি না তা নিয়ে রাজউকের কর্মকর্তারাই সন্দেহে রয়েছেন।

কি কারণে কাজ শেষ করতে না পারার প্রথম কারণ হিসেবে করোনাকে দায়ী করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রকল্পের অগ্রগতি প্রতিবেদনে বলা হয়, বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ থেকে দেশে সাধারণ ছুঁটি ঘোষণা করা হয়। সে সময় লোকবলের অভাবসহ কাজ দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল। প্রকল্পের অগ্রগতি ৭০ শতাংশ হয়েছে বলে দাবি করেছে রাজউক।

রাজউক সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীতে জনসংখ্যার চাপ কমাতে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ও গাজীপুরের কালীগঞ্জের ৬ হাজার ১৫০ একর জমি নিয়ে গড়ে উঠছে পূর্বাচল নতুন শহর। এতে আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্লট রয়েছে প্রায় ৩০ হাজার। এই শহর গড়তে রাজউকের নেওয়া প্রকল্প ২০২৪ সালের ডিসেম্বরে শেষ হওয়ার কথা। কাজ পুরোপুরি শেষ না হওয়ায় সেখানে এখনো বসতি গড়ে ওঠেনি। তবে পূর্বাচলে ভবন নির্মাণের অনুমোদন দেওয়া শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

রাজউক সূত্রে জানা গেছে, পূর্বাচলে এখন পর্যন্ত ২৯০টি বাড়ি নির্মাণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আবেদন পড়েছে ৩১৩টি।
প্রকল্পটির মোট আয়তন ৬ হাজার ২২৭ দশমিক ৩৬ একর। ঢাকার খিলক্ষেত, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জ জেলার জমি নিয়ে প্রকল্পটি গড়া হয়েছে। এতে বিভিন্ন শ্রেণির (আবাসিক, বাণিজ্যিক, প্রশাসনিক, প্রাতিষ্ঠানিক, অন্যান্য) ও আয়তনের মোট ২৯ হাজার ৭৭৬টি প্লট আছে। প্রকল্পে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ নগর সেবাকেন্দ্রিক প্লট আছে দুই হাজারের বেশি। এর মধ্যে কিছু প্রাতিষ্ঠানিক প্লট প্রকল্পের মূল মহাপরিকল্পনা বা নকশা সংশোধন করে তৈরি করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে।

এদিকে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে রাজউক থেকে যে সব প্রকৌশলী,প্রকল্প পরিচালক, প্রজেক্ট ম্যানেজার ও অন্যান্য কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছিলো তাদের বিরুদ্ধে উঠেছে হাজার কোটি টাকার অনিয়ম- দুর্নীতির অভিযোগ। দুর্নীতি দমন কমিশন সেব অভিযোগ তদন্ত করছে। অভিযোগের ভিত্তিতে বার বার প্রকল্প পরিচালক,প্রজেক্ট ম্যানেজার, এস্টেট কর্মকর্তা বদল করা হলেও কার্যত: অনিয়ম -দুর্নীতি বন্ধ করা যাচ্ছে না।
সম্প্রতি, এই প্রকল্পে উপপরিচালক (এস্টেট) পদে পদায়ন করা হয়েছে সদ্য পদন্নোতিপ্রাপ্ত নায়েব আলী শরীফকে। তিনি রাজউকের সদস্য (এস্টেট) এর ডান হাত হিসাবে পরিচিত। গোপালগঞ্জ জেলায় তার বাড়ী। আর এ করণেই তিনি রাজউক প্রশাসনে বিশেষ মর্যাদা পেয়ে থাকেন । আর সেই মর্যাদার সুত্র ধরেই পূর্বাচল প্রকল্পে তাকে পদায়ন করা হয়েছে একটা বিশেষ উদ্দেশ্য নিয়ে। এই পদায়নে রাজউকের সদস্য (এস্টেট) এর জোর তদবীর রয়েছে।

একাধিক সুত্রে জানাগেছে, নায়েব আলী শরীফ পূর্বাচল প্রকল্পের উপপরিচালক (এস্টেট) পদে যোগদান করেই পুরো প্রকল্পটিকে তার নিজেস্ব তালুক বা জমিদারী স্বত্ত্ব মনে করছেন। যে কারণে তিনি প্রকল্পের প্লট হস্তান্তর, রুপান্তর, আদীবাসীদের প্লট প্রদানে নানা হয়রানি শুরু করেছেন। কাগজপত্রের ত্রুটি ধরে প্লট মালিকদের সীমাহীন নাজেহাল করছেন। আবার দাবী মোতাবেক ঘুস পেলেই সব আপত্তি গায়েব করে দিচ্ছেন। তিনি বরাদ্দপ্রাপ্ত প্লট মালিকদের প্লট বরাদ্দ বাতিল করার হুমকি দিয়েও অনৈতিক অর্থ আদায় করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সুত্রগুলো আরো জানায়, উপপরিচালক (এস্টেট) নায়েব আলী শরীফ রাত ১০/১১ টা পর্যন্ত পূর্বাচল প্রকল্পে অবস্থান করেন। এ সময় তিনি প্রকল্পের অফিসটি আনন্দ ফুর্তির কাজে ব্যবহার করেন। এসি ছেড়ে দিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় কাটান। এটি সরকারী সম্পদ ও অর্থের অপচয় করার অপরাধ হলেও তিনি সেটি অবলীলায় করে যাচ্ছেন। প্লট হস্তান্তর বা সেল পারমিশনের ক্ষেত্রে তিনি ৫/৬ লাখ টাকা পর্যন্ত ঘুস দাবী করছেন।
রাজউকের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তার মানি মেশিন হিসাবে সুপরিচিত উপ-পরিচালক (এস্টেট) নায়েব আলী শরীফের সম্পর্কে।

খোঁজ খবর নিয়ে আরো জানা গেছে, তিনি রাজউকে মাত্র ১০ বছর চাকুরী করেই অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। ঢাকা শহরে একাধিক প্লট,ফ্ল্যাট ছাড়াও নিজ এলাকা ও তার শশুর বাড়ী এলাকায় প্রচুর সম্পদ ক্রয় করেছেন। গাড়ী,বাড়ী, প্লট, ফ্ল্যাট, শপিং মলে দোকান ছাড়াও নামে-বেনামে ব্যাংকে রয়েছে কোটি কোটি টাকা। যা তার চাকুরী জীবনের আয়ের সাথে সংগতিপূর্ণ নয়। রাজউকের নানা পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের সাথে কথা বলে তার সম্পর্কে বেশ কিছু গুরুতর অভিযোগ পাওয়া যায়। অনেকেই মন্তব্য করেন যে, নায়েব আলী শরীফ সব সময় টপ মেজাজে থাকেন।
উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথেও ধৃষ্ঠতামুলক আচরণ করেন। কাউকেই তোয়াক্কা করেন না। তাদের আদেশ নিষেধও মান্য করেন না। এমন কি অফিসিয়াল ডেকোরমও পালন করেন না। তিনি নিজেকে সবার বস মনে করেন। তার এ ধরনের আচরণ সরকারী চাকুরী শৃংক্ষলা বিধির সুস্পষ্ট লংঘন হলেও তিনি সেটা গায়ে মাখেন না।
পূর্বাচল প্রকল্পের একাধিক প্লট মালিকদের অভিযোগ, নায়েব আলী শরীফ যে দিন থেকে পূর্বাচল প্রকল্পের উপ-পরিচালক (এস্টেট) পদে যোগদান করেছেন তার পরদিন থেকেই তাদের হয়রানি বেড়ে গেছে। প্রকল্প এলাকায় নানা প্রকার অসামাজিক কার্যকলাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। যে সব প্লট মালিক বাড়ী নির্মাণের পরিকল্পনা নিচ্ছিলেন তারাও থমকে গেছেন। প্রকল্প এলাকার দালালদের সাথে গভীর সখ্যতা গড়ে তুলেছেন নায়েব আলী শরীফ। ফলে যে কোন সময় প্লট মালিক ও দালালদের মধ্যে মারাত্মক সংঘর্ষ বা খুনোখুনীর আশংকা দেখা দিয়েছে।
প্লট মালিক ও এলাকাবাসীদের দাবী, অতিসত্তর পূর্বাচল প্রকল্পের উপপরিচালক (এস্টেট) পদ থেকে নায়েব আলী শরীফকে প্রত্যাহার করা হোক। একই সাথে তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অনিয়ম-দুর্নীতি,অবৈধ সম্পদ অর্জন ও চাকুরী শৃঙ্খলাবিধি ভংঙ্গের জন্য আইনানুগ ও বিভাগীয় শাস্তমুলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য রাজউকের উপ-পরিচালক (এস্টেট) নায়েব আলী শরীফের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নড়িয়া প্রানী সম্পদ দপ্তরে ভেটারিনারি সার্জন নেই তবুও যথাযথ সেবা পাচ্ছে খামারীরা

এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

বগুড়ার শেরপুরে পরিবেশ প্রতিরক্ষা সংস্থার উদ্যোগে স্মার্ট স্কুল প্লান্টেশন শুরু করা হয়েছে

উল্লাপাড়ায় নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগরেরা

৭ নং অনুচ্ছেদে সংশোধনসহ কোটার বিষয়ে আদালতকে পাশ কাটিয়ে কিছুই করবে না সরকার: আইনমন্ত্রী

শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বিশেষ রেয়াতের সুবিধা বিবেচনা করা হচ্ছে

২০১৮ কোটা আন্দোলনের মেধাবী নেতারাই যখন বিসিএস পরীক্ষায় ফেল

ক-তফসিলভুক্ত অর্পিত সম্পত্তি অভিন্ন খতিয়ানের আওতায় আসছে

ডিমলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

নজরুলের বিদ্রোহী চেতনা ধারণ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেনঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

১০

যে পরিকল্পনায় অগ্রগতি নেই সে পরিকল্পনা মূল্যহীন: গণপূর্তমন্ত্রী

১১

শাহজাদপুরের চিথুলিয়া বন্যায় ভেঙে যাওয়া পাকা সড়ক মেরামতে ধীরগতি, ৯ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতে দূর্ভোগ

১২

প্রাইম ব্যাংক পিএলসিথর সাথে পেরোল ব্যাংকিং চুক্তি করেছে রিভ গ্রুপ

১৩

চা নিয়ে অবৈধ ব্যবসা করলে শুধু লাইসেন্স বাতিল নয়- কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

১৪

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি

১৫

উল্লাপাড়ায় ৭৫ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১০ কমিউনিটি ক্লিনিক পানিবন্দি

১৬

কেইনের অর্জন, ফন ডাইকের যন্ত্রণা

১৭

শাহজাদপুরে দেশীয় শুটার গান সহ ডাকাত দলের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে শাহজাদপুর থানা পুলিশ

১৮

ইডিএলএমএস প্রকল্পে ৩৭% অগ্রগতি

১৯

মাদক সরবরাহ উৎসের মূলোৎপাটন করে মাদককে স্থায়ীভাবে নির্মূল করতে হবে”- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

২০