itpolly
২০ মার্চ ২০২৪, ৭:১৬ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

রোববার সন্ধ্যা থেকে ঢাবিতে প্রবেশ করতে পারবে না বহিরাগতরা!

আগামীকাল ৩১ ডিসেম্বর বিশ্বব্যাপী উদযাপিত হবে থার্টিফাস্ট নাইট। থার্টি ফার্স্ট নাইটকে কেন্দ্র করে আগামীকাল রোববার সন্ধ্যা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বহিরাগতরা প্রবেশ করতে পারবেন না। শনিবার ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পরে বহিরাগত কোন ব্যক্তি বা যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না। শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টিকারযুক্ত যানবাহন পরিচয় প্রদান সাপেক্ষে প্রবেশ করতে পারবে।

এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বসবাসরত শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টার টার মধ্যে স্ব-স্ব এলাকায় ফিরবেন এবং রাত ৮টার পরে প্রবেশের ক্ষেত্রে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যবৃন্দকে পরিচয়পত্র প্রদর্শন করতে হবে।

ডিএমপি জানিয়েছে, ঢাকা মহানগরের সার্বিক নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলার স্বার্থে রাস্তার মোড়, ফ্লাইওভার, রাস্তায় এবং প্রকাশ্যে স্থানে কোন ধরনের সভা-জমায়েত বা উৎসব করা যাবে না।

উন্মুক্ত স্থানে নববর্ষ উদ্‌যাপন উপলক্ষে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান, সমাবেশ, নাচ, গান ও কোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না। কোথাও কোনো ধরনের আতশবাজি, পটকা ফোটানো ও ফানুস ওড়ানো বা ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে না।

গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় রাত ৮ টার পর বহিরাগতরা প্রবেশ করতে পারবে না। তবে এসব এলাকায় বসবাসরত সম্মানিত নাগরিকরা নির্ধারিত সময়ের পর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউ (কাকলী ক্রসিং) এবং মহাখালী আমতলী ক্রসিং দিয়ে পরিচয় প্রদান সাপেক্ষে প্রবেশ করতে পারবে।

একইভাবে উপর্যুক্ত সময়ে সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে গুলশান, বনানী, বারিধারা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকায় যে সকল নাগরিক বসবাস করেন না তাদেরকে বর্ণিত এলাকায় গমনের ক্ষেত্রে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।

হাতিরঝিল এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে কোনো সমাবেশ বা অনুষ্ঠান করা যাবে না এবং কোন যানবাহন থামিয়ে অথবা পার্কিং করে কেউ অবস্থান করতে পারবে না।

গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় বসবাসরত সম্মানিত নাগরিকদের ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টার মধ্যে স্ব-স্ব এলাকায় ফেরার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টার পর ঢাকা মহানগরীর কোনো বার খোলা রাখা যাবে না।আবাসিক হোটেলগুলো সীমিত আকারে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠান করতে পারবে।

ইংরেজি নববর্ষের প্রাক্কালে ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা হতে ১ জানুয়ারি ২০২৪ ভোর ৫টা পর্যন্ত ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেল, রেস্তোরাঁ, জনসমাবেশ ও উৎসবস্থলে সকল প্রকার লাইসেন্সকৃত আগ্নেয়াস্ত্র বহন করা যাবে না।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নড়িয়া প্রানী সম্পদ দপ্তরে ভেটারিনারি সার্জন নেই তবুও যথাযথ সেবা পাচ্ছে খামারীরা

এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

বগুড়ার শেরপুরে পরিবেশ প্রতিরক্ষা সংস্থার উদ্যোগে স্মার্ট স্কুল প্লান্টেশন শুরু করা হয়েছে

উল্লাপাড়ায় নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগরেরা

৭ নং অনুচ্ছেদে সংশোধনসহ কোটার বিষয়ে আদালতকে পাশ কাটিয়ে কিছুই করবে না সরকার: আইনমন্ত্রী

শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বিশেষ রেয়াতের সুবিধা বিবেচনা করা হচ্ছে

২০১৮ কোটা আন্দোলনের মেধাবী নেতারাই যখন বিসিএস পরীক্ষায় ফেল

ক-তফসিলভুক্ত অর্পিত সম্পত্তি অভিন্ন খতিয়ানের আওতায় আসছে

ডিমলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

নজরুলের বিদ্রোহী চেতনা ধারণ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেনঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

১০

যে পরিকল্পনায় অগ্রগতি নেই সে পরিকল্পনা মূল্যহীন: গণপূর্তমন্ত্রী

১১

শাহজাদপুরের চিথুলিয়া বন্যায় ভেঙে যাওয়া পাকা সড়ক মেরামতে ধীরগতি, ৯ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতে দূর্ভোগ

১২

প্রাইম ব্যাংক পিএলসিথর সাথে পেরোল ব্যাংকিং চুক্তি করেছে রিভ গ্রুপ

১৩

চা নিয়ে অবৈধ ব্যবসা করলে শুধু লাইসেন্স বাতিল নয়- কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

১৪

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি

১৫

উল্লাপাড়ায় ৭৫ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১০ কমিউনিটি ক্লিনিক পানিবন্দি

১৬

কেইনের অর্জন, ফন ডাইকের যন্ত্রণা

১৭

শাহজাদপুরে দেশীয় শুটার গান সহ ডাকাত দলের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে শাহজাদপুর থানা পুলিশ

১৮

ইডিএলএমএস প্রকল্পে ৩৭% অগ্রগতি

১৯

মাদক সরবরাহ উৎসের মূলোৎপাটন করে মাদককে স্থায়ীভাবে নির্মূল করতে হবে”- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

২০