নিজস্ব প্রতিবেদক
১১ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

রাষ্ট্রপতি ক্ষমা করলেন না: ড. মোহা. মোকবুল হোসেনকে

জেড, ইসলাম বাবু।।

ড. মোহা. মোকবুল হোসেন
বিধিবহির্ভূতভাবে ৬ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেওয়ার অভিযোগে দণ্ডপ্রাপ্ত রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোহা. মোকবুল হোসেনের ক্ষমার আবেদন নাকচ করেছেন রাষ্ট্রপতি। ফলে তার বেতন গ্রেডের ধাপে অবনতিকরণের লঘুদণ্ড বহাল থাকল।

গত ৩১ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের শৃঙ্খলাবিষয়ক শাখার সচিব সোলেমান খান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। আজ সোমবার বিষয়টি জানাজানি হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বর্তমানে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহা. মোকবুল হোসেন ২০২০ সালে ১৫ জানুয়ারি রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের ছয়জন কর্মকর্তাকে বিধিবহির্ভূতভাবে পদোন্নতির আদেশ দেন। এ সংক্রান্ত বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির তদন্তের জন্য নির্ধারিত তারিখ জানার সত্ত্বেও তদন্তে অনুপস্থিত থেকে দায়িত্বে অবহেলার কারণে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮-এর বিধি ৩ (খ) অনুযায়ী ‘অসদাচরণ’-এর অভিযোগে বিভাগীয় মামলা হয়। একই বিধিমালার বিধি ৪ (২) (ঘ) মোতাবেক ২০২৩ সালের ২৭ জুলাই প্রজ্ঞাপনমূলে ‘বেতন গ্রেডের নিম্নতর ধাপে অবনমিতকর’ লঘুদণ্ড দেওয়া হয়। পরে তিনি ওই আদেশের বিরুদ্ধে দণ্ডাদেশ মার্জনা করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি বরাবর পুনর্বিবেচনার আবেদন করেন।

কিন্তু রাষ্ট্রপতি পুনর্বিবেচনার আবেদন নামঞ্জুর করে আগের দণ্ড বহাল রেখেছেন। কাজেই ড. মোহা. মোকবুল হোসেনের ‘বেতন গ্রেডের নিম্নতর ধাপে অবনতিকরণ’ লঘুদণ্ডের আদেশ বহাল রাখা হলো।

এর আগে, পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের এক তদন্তে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের ১৫ কর্মকর্তার পদোন্নতিতে অনিয়ম ধরা পড়ে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) বিভাগের পৃথক চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ২০২১ সালের ২৩ থেকে ২৫ নভেম্বর পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে গিয়ে সরেজমিনে এ বিষয়ে তদন্ত করে।

২০২২ জানুয়ারিতে এ কমিটি দুদক ও মাউশিতে প্রতিবেদন জমা দেয়। প্রতিবেদনে ওই ১৫ কর্মকর্তার পদোন্নতি স্থগিত এবং গ্রহণ করা অতিরিক্ত অর্থ ফেরত নেওয়ার সুপারিশ করা হয়। তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে যাওয়ার পর পদোন্নতি স্থগিত এবং গ্রহণ করা অতিরিক্ত অর্থ ফেরত নেওয়ার সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়।

তদন্ত প্রতিবেদন কপি, ফাইল ফটো।

তদন্ত প্রতিবেদনে উঠে আসে, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের তৎকালীন চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ ও অধ্যাপক মো. মোকবুল হোসেনের নিজ নিজ আমলে পদোন্নতির এসব অনিয়ম ঘটে। দুই দফায় ১৫ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দিতে নানা অনিয়ম করেছেন তারা। সিলেকশন কমিটিও নিয়ম না মেনে তাদের পদোন্নতির সুপারিশ করেছিল। প্রথমে ২০১৭ সালে ৯ জন সপ্তম গ্রেড থেকে ষষ্ঠ গ্রেডে পদোন্নতি পান। তাদের পদোন্নতি দিতে সিলেকশন কমিটি ২০১৭ সালের ২১ এপ্রিল বোর্ডের চেয়ারম্যানের কক্ষে ৪৮ জন কর্মকর্তার মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করে।

কমিটির সভাপতি ছিলেন বোর্ডের তৎকালীন চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ। ৪৮ জনের মধ্যে কমিটি ৯ জনকে পদোন্নতির সুপারিশ করলে ২০১৭ সালের ৯ জুলাই তাদের পদোন্নতি দেওয়া হয়। শুধু মৌখিক পরীক্ষার ভিত্তিতে ৯ জনের পদোন্নতির তালিকাটি করা হয়।

ওই মেধাতালিকা থেকে ২০২০ সালের ১৫ জানুয়ারি বোর্ডের তৎকালীন চেয়ারম্যান মোকবুল হোসেন আরও ছয়জনকে পঞ্চম গ্রেডে পদোন্নতি দেন। প্রথমে বিতর্কিত ওই মেধাতালিকার ১ থেকে ৯ নম্বর ক্রমিকের কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেওয়া হলেও দ্বিতীয় ধাপের পদোন্নতির ক্ষেত্রে এ ক্রমিক অনুসরণ করা হয়নি। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় চূড়ান্তভাবে দণ্ডপ্রাপ্ত হন অধ্যাপক মোকবুল হোসেন।

এ বিষয়ে ড. মোহা. মোকবুল হোসেনের সঙ্গে একাধিকবার মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

দ্রুত, নিরাপদে ও স্বাচ্ছন্দ্যে মেট্রোরেলে যাতায়াত করার লক্ষ্য অর্জনে সকল অংশীজনকে একসাথে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন – ওবায়দুল কাদের এমপি।

বঙ্গবন্ধু কন্যার লড়াইয়ের গল্প গোটা বিশ্বের কাছে তুলে ধরাই হোক অঙ্গীকার -তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

স্বাস্থ্য খাতে বাজেট বাড়ানোর প্রস্তাব এসডিজি অ্যাকশন এলায়েন্সের

উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় অটোভ্যান চালকের মৃত্যু

শাহজাদপুরে দুর্নীতি বিরোধী র‍্যালি আলোচনা সভা ও বিতর্ক প্রতিযোগীতা

‘রৌপ্য ব্যাঘ্র’ পদক পেলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব

উল্লাপাড়ায় শতভাগ ফেল করা ৪ মাদ্রাসাকে শোকজ

চালককে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই,-গ্রেপ্তার ৩

শেখ হাসিনা স্বাধীন বাঙালির অনিঃশেষ প্রেরণা- রবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম

জলবায়ু সহিষ্ণুতায় ভূমিসেবা ডিজিটালাইজেশনের ইতিবাচক প্রভাব বিশ্ব ব্যাংক সম্মেলনে প্রশংসিত

১০

ভূমিমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ

১১

‘চাঁদা’ হিসেবে লুঙ্গি দাবি, ওসিকে বদলি!

১২

উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাচনের হাওয়ায় বইছে আনন্দের আমেজ

১৩

যশোরে শার্শায় ৩টি হাতবোমা উদ্ধার

১৪

কচু চাষ করে লাভবান শাহজাদপুরে কৃষক।অধিক ফলন ও লাভে কৃষকের মুখে হাসি

১৫

সিঙ্গাপুরে প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্টের বিনিয়োগ রোডশো

১৬

বগুড়ার শেরপুরে বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ ২০২৪ এর উদ্বোধন

১৭

বেনাপোল সহ ৪ টি বন্দরে ভারতগামী পাসপোর্টযাত্রীদের অনলাইন সুবিধা চার্জ এর শুভ উদ্বোধন

১৮

ডিমলায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি ভস্মীভূত

১৯

স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ,গ্রেপ্তার দুই

২০