নিজস্ব প্রতিবেদক :
২০ জুন ২০২৪, ৭:২৬ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

প্রভাবশালী আ.লীগ নেতার বাসা থেকে মিন্টুকে গ্রেপ্তারের

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে ৮ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। রিমান্ডে নেওয়ার তৃতীয় দিনে গত রবিবার মিন্টুকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মাহফুজুর রহমান। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার একটি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালতে নেওয়া হলেও মিন্টু ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেননি।

এ ঘটনায় কেউ বলছেন, ওপরমহলের চাপে মিন্টুকে আদালতে হাজির করে কারাগারে পাঠানো হয়। কেউ বলছেন, মিন্টুর মুখ থেকে রাঘব বোয়ালের নাম বেরিয়ে আসায় বিব্রত পুলিশ। তবে পুলিশের দাবি, স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রয়োজনে তাকে পুনরায় আদালতের মাধ্যেমে আবারও রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

নাম প্রকাশ না করে ডিএমপির এক কর্মকর্তা ক্রাইম ওয়াচ নিউজকে বলেন, মিন্টুকে যে দিন গ্রেপ্তার করা হয়, ওই দিন তিনি ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এক নেতার বাসায় ছিলেন। পরে ওই নেতার নির্দেশে মিন্টু বাসার নিচে নেমে এলে তাকে আটক করে গোয়েন্দা কার্যালয়ে আনা হয়। এরপর থেকে ওপরমহল থেকে মিন্টুকে সাবধানতার সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চাপ ছিল। নিহত আনারের মেয়েও মিন্টুকে ছাড়িয়ে নিতে ওপর থেকে চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে দোটানায় পড়েন তদন্তকারী সংস্থার কর্মকর্তরা। তবে রিমান্ডে থাকা অবস্থয় মিন্টুর কাছ থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। সেগুলো যাচাই-বাছাই চলছে বলে জানান তিনি।

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, রিমান্ডে থাকা অবস্থায় মিন্টু কোনোভাবেই মুখ খুলছিলেন না। পরে প্রযুক্তিগত তথ্য-প্রমাণ হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরুর একপর্যায়ে সবকিছু স্বীকার করে গোয়েন্দাদের আদ্যপান্ত জানান। এ ছাড়া আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেওয়া গ্যাসবাবুও মিন্টুর জড়িত থাকার বিষয়ে তথ্য দেন। মূলত ঝিনাইদহ-৪ আসনে এমপি হওয়ার লোভে পড়ে নেপথ্যে থাকা একটি বড় শক্তির ইন্ধনে তিনি এই খুনের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন।

গোয়েন্দা পুলিশের অপর এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, খুনের মূল কারণ সোনা চোরাচালান ও হন্ডি ব্যবসা। সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকা, যশোর ও ঝিনাইদহের প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে চোরাচালানের টাকার ভাগ-বাঁটোয়ারার দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন আনার। আর এ কারণে তারা আনারকে সরিয়ে দেওয়ার পথ খুঁজছিলেন। একপর্যায়ে এই সিন্ডিকেটের নজরে পড়ে আনারের সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিন্টুর দ্বন্দ্বের বিষয়টি। তারা মিন্টুকে আনারের আসনে এমপি বানানোর লোভ দেখান। মিন্টুও তাদের ফাঁদে পা দেন। দফায় দফায় তাদের সঙ্গে মিন্টুর বৈঠক হয়। একপর্যায়ে খুনের দায়িত্ব নেন মিন্টু।

ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তার মতে, মূলত চোরাচালানের দ্বন্দ্ব হলেও খুনে ব্যবহার করা হয়েছে রাজনৈতিক শত্রুতা। এতে ফায়দা লুটেছে ওই চোরাচালান সিন্ডিকেট।

পুলিশ সূত্র জানায়, রিমান্ডে থাকা অবস্থায় মিন্টুর কাছে বেশ কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর খুঁজেছেন গোয়েন্দারা। প্রথমত, মিন্টুর মোবাইলে আনারের নিথর দেহের ছবি কীভাবে এলো। একই সঙ্গে গ্যাসবাবুর তিনটি মোবাইল তিনি কেন নিজের হেফাজতে রাখলেন। এ ছাড়া গ্যাসবাবুর জবানবন্দিতে চুক্তি অনুযায়ী খুনের টাকা মিন্টুর পরিশোধের কথা কেন এলো? এটিও জানতে চাওয়া হয়। এসব প্রশ্নে নিশ্চুপ থেকেছেন মিন্টু। পরে মিন্টু ও গ্যাসবাবুর মোবাইল ফোন ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। এরই মধ্যে গ্যাসবাবুর মোবাইলের ফরেনসিক রিপোর্ট পাওয়া গেছে। সেখানে মিন্টুর সঙ্গে কথোপকথন ও বার্তা আদান-প্রদানের প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে মিন্টুর মোবাইল ফোনের ফরেনসিক রিপোর্ট এখনো পাওয়া যায়নি। মিন্টুর মোবাইল ফোনের ফরেনসিক রিপোর্ট পাওয়া গেলে এবং সেখান থেকে এই খুনের তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেলে আবারও গ্যাসবাবু ও মিন্টুকে রিমান্ডে আনা হতে পারে বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি সূত্র দাবি করেছে।

ডিবির একটি সূত্র বলছে, আট দিনের রিমান্ডের তৃতীয় দিনে মিন্টুর কাছ থেকে আরও বড় ধরনের রাঘব বোয়ালের নাম বেরিয়ে এসেছে। সেই তথ্যগুলো যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। এ কারণে তাকে মাঝপথে কারাগারে পাঠানো হয়।

১১ জুন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাজধানীর ধানমন্ডি থেকে মিন্টুকে ডিবি পুলিশ আটক করে। ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। ১৩ জুন আদালতের মাধ্যমে মিন্টুকে আট দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। রিমান্ড শুনানিতে আদালতকে মিন্টু বলেন, ‘আমি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। এমপি মনোনয়ন চাওয়াই আমার অপরাধ।’

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের প্রধান হারুন অর রশীদ গণমাধ্যমকে বলেন, গ্যাসবাবুর জবানবন্দিতে মিন্টুর নাম আসার কারণে তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যগুলো যাচাই-বাছাই চলছে। প্রয়োজনে তাকে আবারও রিমান্ডে আনা হবে। তদন্তে ওপরমহল থেকে কোনো ধরনের চাপ নেই বলেও জানান ডিবিপ্রধান।

গত ১২ মে ভারতে চিকিৎসার জন্য গিয়ে নিখোঁজ হন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। পরে তাকে হত্যার খবর আসে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ ও ভারতে গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের স্বীকারোক্তি অনুসারে কিছু হাড় ও মাংস খন্ড উদ্ধার হয়েছে। সেগুলো আনারের কি না, তার ফরেনসিক পরীক্ষা চলছে। রিপোর্ট আসার পর আনারের মেয়ে ডরিনকে কলকাতায় ডাকা হবে। পরে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ডিমলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

নজরুলের বিদ্রোহী চেতনা ধারণ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেনঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

যে পরিকল্পনায় অগ্রগতি নেই সে পরিকল্পনা মূল্যহীন: গণপূর্তমন্ত্রী

শাহজাদপুরের চিথুলিয়া বন্যায় ভেঙে যাওয়া পাকা সড়ক মেরামতে ধীরগতি, ৯ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতে দূর্ভোগ

প্রাইম ব্যাংক পিএলসিথর সাথে পেরোল ব্যাংকিং চুক্তি করেছে রিভ গ্রুপ

চা নিয়ে অবৈধ ব্যবসা করলে শুধু লাইসেন্স বাতিল নয়- কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি

উল্লাপাড়ায় ৭৫ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১০ কমিউনিটি ক্লিনিক পানিবন্দি

কেইনের অর্জন, ফন ডাইকের যন্ত্রণা

শাহজাদপুরে দেশীয় শুটার গান সহ ডাকাত দলের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে শাহজাদপুর থানা পুলিশ

১০

ইডিএলএমএস প্রকল্পে ৩৭% অগ্রগতি

১১

মাদক সরবরাহ উৎসের মূলোৎপাটন করে মাদককে স্থায়ীভাবে নির্মূল করতে হবে”- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

১২

যেভাবে ফাঁস করতেন পিএসসি’র নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র

১৩

পেশাদার সাংবাদিকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে চায় সরকার -তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

১৪

আড়াই লক্ষের বেশি মামলা কেস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের ব্যবস্থাপনাধীনে আনা হয়েছে ~ভূমি সচিব

১৫

কোটা সমস্যা নিরসনের সঠিক জায়গা আদালত: আইনমন্ত্রী

১৬

আগামী ১৮ জুলাই বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকোয়াকালচার অ্যান্ড সীফুড শো এর উদ্বোধন করবেন “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা”

১৭

পিএসসির প্রশ্নফাঁস: সেই আলোচিত ড্রাইভার আবেদ আলীসহ গ্রেফতার ১৭

১৮

গণমাধ্যমকে শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে চায় সরকার -তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

১৯

ফোর্বস এর প্রচ্ছদে রিয়েলমি’র সিইও স্কাই লি: আবারও জিটি সিরিজ আনার ঘোষণা

২০